শিক্ষা

ধর্মহীন শিক্ষানীতি বাতিল না করলে কঠোর কর্মসূচি: জমিয়ত

ঢাকা: শিক্ষা আইন-২০১৬ কে ধর্মহীন আখ্যায়িত করে এ শিক্ষা আইন বাতিল না করলে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুমকি দিয়েছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের নেতৃবৃন্দ।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা মিলনায়তনে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের এক জরুরি সভায় দলটির নেতারা এ হুমকি দেন।

জমিয়ত নেতারা বলেন, শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। শিক্ষা একজন শিক্ষার্থীর অন্তর্নিহীত শক্তিকে জাগ্রত করে তোলে। তাই শিক্ষানীতি ও শিক্ষা আইন হওয়া চাই এমন যা দ্বারা অপরাধ ও অনৈতিকতামুক্ত সুশিক্ষিত জাতি গঠন করা সম্ভব হয়। মুসলিম দেশ হিসেবে বাংলাদেশের শিক্ষানীতি ও শিক্ষা আইন ইসলামী ভাবাদর্শের আলোকেই প্রণীত হওয়া ৯২ ভাগ জনগণের প্রাণের দাবি। কিন্তু পরিতাপের বিষয় হচ্ছে যে, জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ ও শিক্ষা আইন ২০১৬ সে আলোকে প্রণীত হয়নি। যার ফলে পরিকল্পিতভাবে পাঠ্যপুস্তক থেকে ইসলামী ভাবধারার গল্প, কবিতা ও রচনাবলী বাদ দিয়ে তদস্থলে হিন্দুত্ববাদী ভাবধারার রচনা-প্রবন্ধ ও কবিতা সংযুক্ত করার ক্ষেত্র তৈরী হয়েছে এবং সে সুযোগ কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণির স্বার্থান্বেষী মহল মুসলমান শিক্ষার্থীদের ইসলামী মূল্যবোধ নির্মূল করার দুঃসাহস দেখাচ্ছে।

তারা বলেন, প্রণীত জাতীয় শিক্ষানীতি এবং তদালোকে প্রণীত শিক্ষা আইন অবিলম্বে বাতিল করতে হবে, অন্যথায় এ দেশের তৌহিদী জনতাকে সঙ্গে নিয়ে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

জমিয়তের সভাপতি আল্লামা শায়েখ আব্দুল মুমিনের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নির্বাহী সভাপতি মুফতী মোহাম্মদ ওয়াক্কাস, সহ-সভাপতি মাওলানা মোস্তফা আজাদ, সহ-সভাপতি মাও. জহীরুল হক ভূইয়া, মাও. আব্দুর রব ইউসূফী, মহাসচিব আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী, যুগ্ম মহাসিচব এ্যাডভোকেট শাহীনুর পাশা চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর সভাপতি মাও. মঞ্জুরুল ইসলাম, মাও. বাহাউদ্দীন যাকারিয়া, মাও. নাজমুল হাসান, মাও. গোলাম মহিউদ্দীন ইকরাম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button