ব্রেকিং নিউজ

ডাকাতি ছেড়ে রিকশা চালান ঝিনাইদহের আইয়্যুব

ডাকাতি পেশা ছেড়ে এখন রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন ঝিনাইদহের শৈলকূপার মধুদাহ গ্রামের আব্দুর রউফ মোল্লার ছেলে আইয়ুব আলী (৫৫)। এখনও অনেকেই তাকে ‘আইয়ুব ডাকাত’ নামেই চেনে। জীবনের অনেক সময় কেটেছে জেলখানায়। তবে জেল থেকে বের হয়ে যেন জীবনটাকে নতুনভাবে চিনতে পারেন তিনি। রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতে হলেও আর অপরাধ জগতে ফিরতে চান না তিনি।

জানা গেছে, ঝিনাইদহ শহরের নতুন কোর্ট এলাকায় একটি ডাকাতি মামলায় ১৪ বছর জেল খেটে সাত বছর আগে বের হন আইয়ুব হোসেন। এক সময় এলাকার কুখ্যাত ডাকাত ছিলেন তিনি। জেল থেকে বের হয়ে আর ডাকাতি পেশায় ফিরতে চাননি তিনি। তাই ফেরেননি নিজের গ্রামেও। তিনি এখন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ঝিনুকমালা আবাসন এলাকায় নিজের সংসার নিয়ে থাকেন। অপরাধ জগত থেকে দূরে থেকে ভালোভাবে বাঁচার জন্য এখন কঠোর পরিশ্রম করেন তিনি। প্রতিদিন রিকশা চালিয়ে যা আয় হয় তাই দিয়েই সংসার চালান।

আইয়ুব বলেন, ‘আমার যৌবনকাল কেটেছে জেলখানায়। এখন জীবনের অর্থ বুঝতে পেরেছি। তাই স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছি। এলাকার সবাই আমাকে খারাপ চোখে দেখত। তবে এখন আমি আর কোনও খারাপ কাজ করি না। ভবিষ্যতেও কোনও অপরাধ করবো না। আমার সামনে কোনও অন্যায় হলে তার প্রতিবাদ করবো।’

তিনি আরও বলেন, ‘অন্যায় কাজ অনেক আগেই ছেড়ে দিয়েছি। তবুও কিছু মানুষ আমাকে খারাপ চোখে দেখে। তাই এখনও প্রতিদিন ঝিনাইদহ সদর থানায় হাজিরা দিই। থানার ওসি স্যার খুব ভালো মানুষ। তিনি আমাকে আরও ভালোভাবে চলার পরামর্শ দিয়েছেন। আমি বাকি জীবনটা সৎ ও নিষ্ঠার সঙ্গে চলতে চাই।’

Spread the love

Related posts