ব্রেকিং নিউজ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভেঙে ফেলা মসজিদ পুনঃনির্মাণ ও জড়িতদের শাস্তির দাবি হেফাজতে ইসলামের

Image result for রোহিঙ্গা ক্যাম্প

কক্সবাজার ব্যুরো : কুতুপালং মধুরছড়ায় রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে ‘শাইখুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হক রহ. মসজিদ’ ভেঙে ফেলায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী। তিনি আজ এক বিবৃতিতে এই দাবি জানান। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, মিয়ানমারের সামরিকজান্তা ও বৌদ্ধ সন্ত্রাসীদের হাতে নির্যাতিত রোহিঙ্গারা এদেশে আশ্রয় নিয়েছে তাদের জান মাল ঈমান ইজ্জত রক্ষার জন্য। তাদের ধর্মীয় নিরাপত্তা, মানবিক সাহায্য করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। দেশের আলেম সমাজ তাদের ঈমান আকিদার হেফাজতের লক্ষে নিজেরা অর্থ ও পরিশ্রমের মাধ্যমে মসজিদ, মক্তব কায়েম করেছে।

এগুলো রক্ষা করা সরকারের দায়িত্ব। অথচ অত্যন্ত দুঃখজনক হলো, আলেম উলামা ও সাধারণ মুসলিম জনতার অর্থে রোহিঙ্গাদের জন্য নির্মিত মসজিদ ও মাদরাসা পরিচালনায় সরকার বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিছু ইসলামবিদ্বেষী এনজিওদের প্ররোচনায়, এবং ক্যাম্প ইনচার্জ ম্যাজিস্ট্রেট এনামুল হক পাভেলের নির্দেশে কুতুপালং এর সর্ববৃহৎ মসজিদটি ভেঙে ফেলা হয়েছে। এটা মুসলমানদের ধর্মীয় চেতনার ওপর আঘাত ও আল্লাহর ঘর পবিত্র মসজিদের প্রতি চরম ধৃষ্টতা। তিনি অবিলম্বে ভেঙে ফেলা মসজিদ পুনঃনির্মাণ করে দেয়ার জন্য শরনার্থী ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত

কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবী জানান। সাতে সাথে ওই ম্যাজিস্টেট্র এনামুল হক পাভেলসহ এর সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবী জানান। অন্যথায় মসজিদ ভাঙার নির্দেশদাতা ক্যাম্প ইনচার্জ ম্যাজিস্ট্রেট এনামুল হক পাভেলসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও প্ররোচনাদানকারী এনজিদের বিরুদ্ধে সারা দেশে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলেও তিনি হুশিয়ারী উচ্চারন করেন।

Spread the love

Related posts