ব্রেকিং নিউজ

নবম ওয়েজবোর্ড ঘোষণা শিগগিরই: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক:শিগগিরই নবম ওয়েজ বোর্ডের গেজেট প্রকাশ করা হবে বলে সংসদে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে খুলনা-৪ আসনের সালাম মুর্শেদীর প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

হাছান মাহমুদ জানান, নবম ওয়েজ বোর্ড গঠনের পর গত ১ মার্চ ২০১৮ থেকে সব গণমাধ্যমকর্মীকে ৪৫ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা প্রদান করা হচ্ছে। ওয়েজ বোর্ডের রোয়োদাদের সুপারিশ পরীক্ষা করে শিগগিরই গেজেট প্রকাশ করা হবে।

উল্লেখ্য, দেশের দৈনিক পত্রিকাগুলোতে ৯ম ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়নের দাবিতে ২০১৬ সাল থেকে দাবি আদায়ের আন্দোলন শুরু করে সাংবাদিকরা। দীর্ঘ আলোচনা ও প্রক্রিয়া সম্পন্নের পর গত বছরের ১১ সেপ্টেম্বর সংবাদপত্র ও সংবাদ সংস্থাগুলোতে নিয়োজিত সাংবাদিক-কর্মচারীদের জন্য মূল বেতনের ৪৫ শতাংশ হারে অন্তর্বর্তীকালীন মহার্ঘ্য ভাতা সুবিধা ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করে তথ্য মন্ত্রণালয়। এরপর নতুন সরকারের দায়িত্ব গ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ২১ জানুয়ারি নতুন সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের শক্তিশালী কমিটি গঠন করে দেন। গত ২৬ জানুয়ারি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এবং সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের উপস্থিতিতে পত্রিকা মালিকদের সংগঠন নোয়াব এর সঙ্গে এক বৈঠকে রোয়েদাদ বাস্তবায়নের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। বিষয়টি নিয়ে আরও আলোচনার সিদ্ধান্ত হয় সে বৈঠকে।

এদিন সংসদে জাতীয় পার্টির নাসরিন জাহান রত্নার সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, সমস্ত অনলাইন গণমাধ্যমকে অনলাইন নীতিমালার আওতায় নিবন্ধিত হতে হবে।

অপর এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী জানান, কিছু বেসরকারি টেলিভিশনের মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রচারের বিষয়ে আমরা ওয়াকিবহাল। আমরা কিছুদিনের মধ্যে টিভি চ্যানেলগুলোর মালিক ও নির্বাহী কর্মকর্তাদের সঙ্গে বসবো। চ্যানেলগুলোতে যাতে মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ পরিবেশন না করা হয় সেই মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

তিনি জানান, মন্ত্রিসভার অনুমোদিত সম্প্রচার নীতিমালার আলোকে একটি সম্প্রচার কমিশন গঠন করা হবে। সব চ্যানেলগুলো যাতে এই নীতিমালায় চলে ওই কমিশনের মাধ্যমে সেই ব্যবস্থা করা হবে।

Spread the love

Related posts