তারেক রহমান যা বলবে ছাত্রদল সেটিই নে নেমেবে: ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে কারচুপির সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

১২ ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রদল অংশ নেবে না—এটা তারা এখনো ঘোষণা দেয়নি। আপাতত দাবি-দাওয়ার পক্ষে কিছু কিছু স্ট্যান্ড দলগতভাবে থাকতে পারে। বিএনপিতে টানাপোড়েন আছে। তবে ছাত্রদল তারেক রহমান যা বলবে সেটিই মেনে নেবে।’

তিনি বলেন, ‘ছাত্রদল তারেক রহমানের অনুগত শুরু থেকেই। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের কথাই তারা শুনবে বলে আমি মনে করি। ডাকসু নির্বাচনে কারচুপির সুযোগ নেই।’গত ২৩ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ডাকসু সভাপতি ড. মো. আখতারুজ্জামান ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচনের তারিখ হিসেবে ঘোষণা করেন। এরই মধ্যে গঠনতন্ত্র সংশোধন ও আচরণবিধি প্রণয়নের কাজ শেষ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. এস এম মাহফুজুর রহমানকে প্রধান রিটার্নিং অফিসার এবং আরও পাঁচ জনকে রিটার্নিং অফিসার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। গঠন করা হয়েছে নির্বাচন পরিচালনায় উপদেষ্টা কমিটি।

এদিকে ডাকসু ও হল ছাত্র সংসদ নির্বাচনে কারা কারা ভোটার ও প্রার্থী হতে পারবেন তাও ঘোষণা করা হয়েছে। যারা প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে অনার্স, মাস্টার্স, এমফিলে অধ্যয়নরত, তারাই কেবল ভোটার ও প্রার্থী হতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে কারো বয়স ৩০ বছরের ওপরে হলে তারা ভোটার ও প্রার্থী হতে পারবেন না।

এ ছাড়া সান্ধ্যকালীন বিভিন্ন কোর্স, প্রোগ্রাম, প্রফেশনাল এক্সিকিউটিভ, স্পেশাল মাস্টার্স, ডিপ্লোমা, এমএড, পিএইচডি, ডিবিএ, ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্স, সার্টিফিকেট কোর্স অথবা এ ধরনের কোর্সে অধ্যয়নরতরা ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। প্রত্যেক হলে ভোট কেন্দ্র স্থাপন করা হবে।

Spread the love

Related posts