ব্রেকিং নিউজ

বাণিজ্যিকভাবে লেটুসপাতার চাষ শুরু

নিউজ ডেস্ক:চুয়াডাঙ্গায় বাণিজ্যিকভাবে লেটুসপাতার চাষ হচ্ছে। লেটুসপাতার চাষ সহজ ও লাভজনক হওয়ায় কৃষকরা এ চাষে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। জেলায় ১০ বিঘা জমিতে লেটুসপাতার আবাদ হচ্ছে। চুয়াডাঙ্গাসহ অন্য জেলায় ফাস্টফুডের খাবারের দোকানে লেটুসপাতার চাহিদা রয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এজন্য কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতা করছে ও জেলায় এ চাষ বৃদ্ধির জন্য কাজ করছে।
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আকন্দবাড়িয়া ও বেগমপুর গ্রামে লেটুসপাতা চাষ হচ্ছে। কয়েকজন কৃষক এর চাষ করছেন। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আকন্দবাড়িয়া গ্রামের মাঠে মোকারম হোসেন ৪ বিঘা জমিতে লেটুসপাতা চাষ করছেন। লেটুসপাতার বিজ বপনের দুই মাসের মধ্যে গাছে পাতা পূর্ণতা পায়। যা বিক্রি ও খাওয়ার জন্য উপযুক্ত হয়। গাছের পাতার রঙ গাঢ় সবুজ। ফাস্টফুডের দোকানে বিভিন্ন খাবারের সঙ্গে ব্যবহার করা হয় পাতা। লেটুসপাতা চাষে বিঘাপ্রতি খরচ হয় প্রায় ১০ হাজার টাকা। এ চাষ সহজ ও ফলন ভালো হওয়ায় অল্প দিনে বাজারে বিক্রি করা যায়। লেটুসপাতার প্রতিটি গাছ ১০ টাকা দরে বিক্রি করা হয়। এক বিঘা জমিতে প্রায় ১০ হাজার গাছ হয়। যা এক লাখ টাকায় বিক্রি করা যায়। খরচ বাদে বিঘা প্রতি ৯০ হাজার টাকা লাভ হয়।
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তালহা জুবায়ের মাশরুর জানান, লেটুসপাতা চাষের জন্য চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে কৃষকদের। জেলায় লেটুসপাতার চাষ বৃদ্ধির জন্য আমরা কাজ করছি। এটি উচ্চ মূল্যের সবজি। ঢাকায় বাজারজাত করতে পারলে দাম অনেক বেশি পাওয়া যাবে।
কৃষক মোকারম হোসেন জানান, চুয়াডাঙ্গার মাটি ও আবহাওয়া ভালো হওয়ায় লেটুসপাতা চাষ করা সম্ভব। লাভজনক হওয়ায় এর চাষে অনেক কৃষক আগ্রহ দেখাচ্ছে।

Spread the love

Related posts