জাতীয়

২০২০ সালে শুরু হবে বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর কাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বরিশাল ও ভোলার মধ্যে সংযোগ সেতু নির্মাণ করা হবে। আর এটিই হবে দেশের সবচেয়ে বড় সেতু। মঙ্গলবার রাজধানীর বনানীতে সেতু ভবনের সম্মেলন কক্ষে সেতু বিভাগ ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি। সে সময় তিনি সেতুটির ভায়াডাক্টের পরে প্রায় আট কিলোমিটার ফিজিবিলিটি শেষ হয়েছে বলে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ‘ভোলার সঙ্গে বরিশালসহ অন্য জেলাগুলোর সংযুক্ত করতেই নির্মিত করা হবে দেশের এ দীর্ঘতম সেতু। যার দৈর্ঘ্য হবে ৮ দশমিক ৬৪ কিলোমিটার, যা নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর চেয়েও বড়। সরকারের সবচাইতে বড় মেগাপ্রকল্প বলা চলে এটিকে।
২০২০ সালে শুরু হবে বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর কাজ:

অন্যদিকে, রেলপথ মন্ত্রী নূরুল হক সুজন বলেছেন, ২০২০ সালের মার্চ মাসে যমুনা নদীর ওপর নির্মিত বঙ্গবন্ধু সেতুর পাশেই বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর কাজ শুরু হবে। আগামী বছরের ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীর অনুষ্ঠান শুরুর আগে বা পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতুর পূর্ব পাড়ের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। যে দিন থেকে নির্মাণ কাজ শুরু হবে তার চার বছরের মধ্যে এ সেতু কমপ্লিট হবে।  মঙ্গলবার টাঙ্গাইলের যমুনা নদীর পাড়ে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে সেতু নির্মাণের স্থান পরিদর্শন শেষে তিনি এ সব কথা বলেন।

রেলমন্ত্রী আরও বলেন, সেতুর নির্মাণ কাজ দুই ভাগে হবে। একটি ভাগ হবে নদীর পূর্বাংশে অপর ভাগ হবে পশ্চিমাংশে। ইতোমধ্যে টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ হয়ে গেছে। জাপানের তিনটি কোম্পানি টেন্ডারে অংশ নিয়েছে। যে কোম্পানি প্রথম হবে তারাই এ সেতুর নির্মাণ কাজ করবে।

Related Articles

Back to top button
Close