বিবিধ

অস্ত্র ব্যবহারের অধিকার রয়েছে কাশ্মীরীদের: গ্যালোওয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ব্রিটিশ রাজনৈতিক নেতারা দখলকৃত কাশ্মীরে বর্বরতার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে এবং ভারতের দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে কাশ্মীরের মুক্তি আন্দোলনকে জোরালো সমর্থন জানিয়েছেন।

শনিবার করাচিতে সেন্টার ফল পিস, সিকিউরিটি অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট স্টাডিজ (সিপিএসডি) আয়োজিত ‘হিউম্যান রাইটস ইন ইন্ডিয়ান অকুপাইড কাশ্মীর’ শীর্ষক এক আন্তর্জাতিক সেমিনারে বক্তৃতাকালে তারা অধিকৃত অঞ্চলে মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনতি নিয়ে তীব্র উদ্বেগ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ড. আরিফ আলভি। জর্জ গ্যালোওয়ে, লর্ড ডানকান ম্যাকনায়ের, ডেভিড ওয়ার্ড, মার্কাস সি থমলিনসেনসহ ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ, মানবাধিকার কর্মী, আন্তর্জাতিক আইন বিশেষজ্ঞ ও স্কলাররা সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।

আলভি সেমিনারে বলেন যে, ৫ আগস্ট ভারত যে পদক্ষেপ নিয়েছে – অতিরিক্ত সামরিক শক্তি প্রয়োগ ও অবরোধ আরোপ – সেটার কারণে আধুনিক কালের সবচেয়ে বড় ধরনের মানবিক সঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে। তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, “দমন অভিযানের মাত্রা বৃদ্ধির কারণে মানবিক সঙ্কট আরও বিপর্যয়ের দিকে যেতে পারে, যেটা আগে ঘটেনি”।

Back to top button
Close
Close