জাতীয়বিবিধ

বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমলেও দেশে কমছে না কেন, প্রশ্ন ন্যাপের

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘প্রয়োজন ছাড়া জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোয় সাধারণ মানুষের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। বিশ্ববাজারে তেলের দাম বেড়েছে অজুহাত দেখিয়ে দেশেও দাম বাড়ানো হলো। কিন্তু বিশ্ববাজারে কয়েক দফা তেলের দাম কমলেও দেশে কেন কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে না সরকারের কাছে জানতে চায় দেশবাসী।’

গতকাল বুধবার (৮ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (বাংলাদেশ ন্যাপ) চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, আওয়ামী লীগ ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই কয়েক দফায় জ্বালানি তেলের বাড়িয়েছে। এর মধ্যে ডিজেলের দামের কারণে অস্থির হয়ে ওঠেছে দেশের প্রতিটি খাত। দ্রব্যমূল্য নিয়ে দিশেহারা মানুষ। নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে ওঠে পরিবহন সেক্টর। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কয়েক দফা কমেছে। টানা সাত সপ্তাহ ধরে তেলের দাম নিম্নমুখী। রেকর্ড বলছে, গত ১০ বছরের মধ্যে জ্বালানি তেলের বাজারে এমন দরপতন ঘটেনি। কিন্তু এখন পর্যন্ত বিশ্ববাজারের দামের সঙ্গে সমন্বয় করতে বাংলাদেশ সরকারের কোনো পদক্ষেপ লক্ষ্য করছে না দেশবাসী।

বিবৃতিতে বলা হয়, সরকার কোনো যুক্তির ধার ধারে না। সরকারের উদ্দেশ্যই হচ্ছে লুটপাট করা। সাধারণ মানুষের পকেট কেটে মুষ্টিমেয় মানুষের স্বার্থরক্ষা করা। দেশের অধিকাংশ মানুষকে শোষণ করে লুটেরাদের স্বার্থরক্ষা করতে সরকার নানা যুক্তি উপস্থাপন করছে। জ্বালানির দাম বাড়ানোর ক্ষেত্রে সরকারের যুক্তি অসার, তা প্রমাণ হয়েছে। কারণ এখনো দাম কমানো হয়নি। কিন্তু কেন দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে না দেশবাসী জানতে চায়।

Related Articles
Back to top button