জাতীয়

পদ্মার ভাঙনে স্কুল-ব্রিজ নদীগর্ভে

মাদারীপুর সংবাদদাতা : আকস্মিক বৃদ্ধির পর পদ্মার পানি কমতে থাকায় মাদারীপুরের শিবচরে নতুন করে নদীভাঙন তীব্র আকার ধারণ করেছে। ভাঙনের শিকার হয়েছে কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ব্রিজ, রাস্তাসহ অসংখ্য বসতবাড়ি।

শনিবার ভোরে কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের ৭৭নং কাঁঠালবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একটি ব্রিজ, রাস্তাসহ দোকানপাট ও অসংখ্য বসতবাড়ি ইতোমধ্যে পদ্মার বুকে বিলীন হয়ে গেছে। বিলীনের অপেক্ষায় চরাঞ্চলের প্রায় একশ ঘর-বাড়ি।

জানা গেছে, গত কয়েক দিনে পদ্মার তীব্র স্রোত শিবচর উপজেলার চরের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে সরু খালের সৃষ্টি হয়। এখন পানি কমতে থাকায় স্রোতের তীব্রতা ব্যাপক বেড়ে খালের পাশে থাকা বিদ্যালয়, রাস্তাসহ অসংখ্য স্থাপনা নদীগর্ভে চলে গেছে। পদ্মার ভাঙনের ফলে অন্তত পাঁচশ পরিবার বসতভিটা হারিয়ে নিঃস্ব। এনখও ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাট, বসতবাড়িসহ অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। কাঁঠালবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ভেঙে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে ওই স্কুলের শিক্ষার্থীরা।

শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান জানান, মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের ৫০টি গ্রামের প্রায় এক হাজার পরিবার ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে। ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য শুকনো খাবার, চাল ও অন্যান্য ত্রাণসামগ্রী বরাদ্দ করা হবে। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যালয়ের পাঠদান চলমান রাখতে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

Back to top button
Close
Close