জাতীয়

৩ জেলায় চোলাই মদপানে ২১ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক: রংপুর, বগুড়া ও দিনাজপুরে বিষাক্ত চোলাই মদপানে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে দিনাজপুরের বিরামপুরে স্বামী-স্ত্রী এবং আপন দুই ভাইসহ ১০ জন, রংপুরে ৯ ও বগুড়ায় ২ জন রয়েছে। গত কয়েকদিনে উত্তরের তিন জেলায় মদপানে এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিরামপুরের হোমিও ওষুধ ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার সন্ধ্যার দিকে গ্রামের রাস্তায় বসে নেশা জাতীয় তরল পদার্থ সেবন করেন আব্দুল আলিম ও আমিন। এরপর তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর মধ্যে আল আমিন রাত ৯টার দিকে নিজ বাড়িতে মারা যায়। এবং অসুস্থ আব্দুল আলিমকে প্রথমে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তার অবস্থা অবনতি হলে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩টার দিকে আব্দুল আলিম মারা যান।

দিনাজপুরের বিরামপুরে চোলাই মদ পান করে স্বামী-স্ত্রী এবং আপন দুই ভাইসহ ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৫ জন। ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে হোমিও ওষুধ ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নানের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে বিরামপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের কারেছে। আব্দুল মান্নানকে গ্রেপ্তার করেছে। বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৌহিদুর রহমান দশ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত বুধবার থেকে বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ এবং রংপুর মেডিকেল কলেজে তাদের মৃত্যু হয়।

রংপুর সদরের শ্যামপুরে বিষাক্ত চোলাই মদ পানে তিনজন ও পীরগঞ্জের শানেরহাটে ৬ জনের মৃত্যু হয়।

Back to top button
Close
Close