অপরাধআইন-আদালতআন্তর্জাতিকইসলামতথ্যপ্রযুক্তি

বিজেপি নেতার মুসলিমবিদ্বেষী পোস্ট, জেনেও ব্যবস্থা নেয়নি ফেসবুক

সুবহে সাদিক ডেস্ক:

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির কয়েকজন নেতা এবং কিছু হিন্দুত্ববাদী গ্রুপ ও ব্যক্তির  মুসলিমবিদ্বেষী ফেসবুক পোস্টের বিরুদ্ধে জেনেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি ভারতে কোম্পানিটির সর্বোচ্চ নির্বাহী কর্মকর্তা।  এটি জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের নীতিমালা বিরুদ্ধ। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক রিপোর্টে বিষয়টি উঠে এসেছে।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের রিপোর্টটিতে বলা হয়েছে, ফেসবুক তাদের প্লাটফর্মে মুসলিম বিদ্বেষী বক্তব্যের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সাথে সম্পর্ক ধরে রাখতে মুসলিম বিদ্বেষী বক্তব্যগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে ফেসবুক কর্মীদের বরাতে রিপোর্টটিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত শুক্রবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এই রিপোর্টটি প্রকাশ করেছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে,  ভারতে ফেসবুকের একজন সর্বোচ্চ নির্বাহী ভারতীয় জনতা পার্টির নেতাদের মুসলিম বিদ্বেষী এসব পোস্ট সরিয়ে নিতে অস্বীকৃতি জানান। বিজেপি ছাড়াও অন্যান্য হিন্দুত্ববাদী গ্রুপ এবং ব্যক্তিদের পোস্ট সরাতেও অস্বীকৃত জানান তিনি।

ফেসবুকের সাবেক এবং বর্তমান কয়েকজন কর্মীর বরাতে রিপোর্টটিতে বলা হয়েছে, তেলেঙ্গানার বিজেপি নেতা টাইগার রাজা নাভাল সিংয়ের মুসলিম বিদ্বেষী বক্তব্যের বিষয়ে ফেসবুকের নীতিমালা প্রয়োগ করতে অস্বীকৃতি জানান ভারতে কোম্পানিটির প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা আখি দাস। এছাড়াও কমপক্ষে তিনজন হিন্দুত্ববাদী ব্যক্তি এবং গ্রুপকে সহিংস বক্তব্য দিতে উৎসাহিত করা হয়েছে।

টাইগার সিং ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তেলেঙ্গানায় বিজেপির একমাত্র সংসদ সদস্য। তেলেঙ্গানা দেশম পার্টির (টিডিপি) সাবেক এই সদস্য তার মুসলিমবিরোধী অবস্থানের কারণে আলোচিত।  ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের রিপোর্টটিতে বলা হয়েছে, ডানপন্থী এই নেতা রোহিঙ্গা মুসলিমদের গুলি করে হত্যার দাবি জানিয়েছেন। টাইগার সিং জনসমক্ষে বিভিন্ন বক্তৃতায় এবং ফেসবুক পোস্টে ভারতের মুসলিমদের বিশ্বাসঘাতক হিসেবে অভিহিত করেছেন। তিনি মসজিদ গুড়িয়ে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছেন।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, এই বছরের মার্চ মাসে টাইগার সিংয়ের মুসলিমবিদ্বেষী বক্তব্যের বিষয়ে খোঁজ পায় ফেসবুক কর্মীরা। কোম্পানির নীতিবিরুদ্ধ হওয়ায় টাইগার সিংয়ের একাউন্ট বন্ধের বিষয়ে সুপারিশ করেন তারা। ফেসবুক এবং ইন্সটাগ্রামে টাইগার সিংয়ের কয়েক লাখ ফলোয়ার রয়েছে। ইন্সটাগ্রাম ফেসবুকের মালিকানাধীন কোম্পানি।

কিন্তু ভারতে ফেসবুকের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা আখি দাস টাইগার সিংয়ের একাউন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অস্বীকৃতি জানান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বর্তমান এবং সাবেক ফেসবুক কর্মীর বরাতে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের রিপোর্টটিতে বলা হয়েছে, আখি দাস ফেসবুকের পক্ষ থেকে ভারতের সরকারের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করেন। তিনি কর্মীদের বলেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পার্টির নেতাদের এসব পোস্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে দেশটিতে ফেসবুকের ব্যবসায়িক স্বার্থ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে অনুসন্ধানের পর টাইগার সিংয়ের কিছু পোস্ট সরিয়ে ফেলেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এছাড়া তার একাউন্টের ভেরিফায়েড চিহ্নটি (নীল রঙের টিক) সরিয়ে ফেলা হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়নি।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদপত্রটি এ বিষয়ে জানতে চাওয়ার পর ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আরও দুই বিজেপি নেতার পোস্ট মুছে দিয়েছে।

আল জাজিরা

Back to top button
Close
Close