আন্তর্জাতিক

সৌদির সবচেয়ে বড় তেল কম্পানিতে রকেট হামলা হুথিদের!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সৌদি আরবের সবচেয়ে বড় রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি আরমকোর স্থাপনায় রকেট হামলা চালানোর দাবি করেছে ইয়েমেনের সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী হাউথি।

সোমবার (২৩ নভেম্বর) বাহিনীটির এক মুখপাত্র জানান, তাদের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র জেদ্দায় অবস্থিত আরামকোর একটি সরবারহ স্টেশনে আঘাত হেনেছে। হামলার বিষয়ে সৌদির পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়নি।

তাদের দাবি, তেল শোধনা কেন্দ্রের কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে। এ বিষয়ে রাষ্ট্রীয় কোম্পানি আরমকোর কাছে জানতে চাওয়া হলেও কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।

ইরান সমর্থিত বাহিনীটির মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারিয়া ‘অপারেশন চলমান থাকায়’ সৌদিতে থাকা বিদেশি কোম্পানি ও নাগরিকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। বলেন, ‘হামলাটি ছিল একেবারেই নিখুঁত। অ্যাম্বুলেন্স ও ফায়ার ইঞ্জিনগুলো দ্রুত ঘটনাস্থলের দিকে অগ্রসর হয়।

এই মুখপাত্রের দাবি, কুদস-২ মিসাইল আঘাত হানে তেল প্রতিষ্ঠানটিতে। ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের অব্যাহত ধ্বংসজ্ঞ নীতির জবাবেই হামলা ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করেন।

ইয়েমেনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর আল হাদি সরকার উৎখাতের পর ২০১৪ সালে রাজধানী সানা দখলে নেয় নিজেদের সরকার দাবি করা হাউথিরা। হাদি দেশে থেকে পালিয়ে সৌদিতে আশ্রয় নেয়। এরপর ২০১৫ সাল থেকে হাউথিদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে আসছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট।

তাদের এই অভিযানে এ পর্যন্ত নারী-শিশুসহ বহু মানুষ ইয়েমেনি প্রাণ হারিয়েছেন। বাস্তুচ্যুত হন লাখ লাখ মানুষ। ইয়েমেনে সৌদি জোটের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে জার্মানিসহ ইউরোপীয় ইউনিয়ন- ইইউ। জাতিসংঘও নিন্দা জানিয়ে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানায়।

Back to top button