জাতীয়

টাকা না পেলে ‘হাজার টাকার মামলা দেন’ সার্জেন্ট মধু

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: ট্রাফিক পুলিশের এক সার্জেন্টের বিরুদ্ধে সড়কে চাঁদাবাজির অভিযোগ তুলে পুরান ঢাকার সদরঘাট এলাকায় বিক্ষোভ করেছেন সদরঘাট রুটের বাসচালক ও হেলপাররা।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শুরু হয়ে ভিক্টোরিয়া পার্ক সংলগ্ন এলাকায় প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে আন্দোলন চলমান ছিল। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে বিক্ষোভকারীরা সরে পড়েন।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, সদরঘাট সংলগ্ন সকল বাস থেকে মামলার ভয় দেখিয়ে ট্রাফিক পুলিশের এক সার্জেন্ট ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা আদায় করে থাকেন। কেউ টাকা দিতে অস্বীকার করলে গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া এমনকি চালক অথবা হেলপারকে মারধর করারও অভিযোগ করেন তারা।

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া সাভার পরিবহনের চালক মো. রাশেদ বলেন, মধু নামে ওই সার্জেন্ট অকারণে গাড়ি ধরে ৫০০ টাকা চেয়ে বসেন। টাকা না দিলে আড়াই হাজার অথবা পাঁচ হাজার টাকার মামলা দিয়ে দেন। সদরঘাটের এমন কোনো গাড়ি নেই, যে গাড়ি থেকে মধু সার্জেন্ট টাকা নেননি।

আজমেরী পরিবহন মালিক মোহাম্মদ আলাউদ্দিন বলেন, সার্জেন্ট মধুর অত্যাচারে আমরা অতিষ্ঠ। রোডে গাড়ি চললেই তাকে চাঁদা দিতে হয়। যার জন্য আজ আমার সবাই মিলে এর প্রতিবাদ জানাতে রাস্তায় নেমে এসেছি। আমরা চাই এর সুষ্ঠু বিচার হোক।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সার্জেন্ট মধু। তিনি বলেছেন, ‘আমার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ মিথ্যা। আমি কখনো কারও কাছ থেকে চাঁদা নিইনি। গাড়ির কাগজপত্রে সমস্যা থাকলে অথবা নির্দিষ্ট এরিয়ার বাইরে গাড়ি গেলে আমি আইন অনুযায়ী মামলা দিই। চালকরা টার্মিনালের দিকে গাড়ি নিয়ে যান অথবা উল্টো পথে গাড়ি আনা-নেওয়া করেন। তখন আমি মামলা দিই। সকালে একটি গাড়িতে মামলা দেওয়ার পর তারা সবাই অহেতুক রাস্তা বন্ধ করে আন্দোলন করেছেন।

Back to top button