জাতীয়

মিয়ানমারে বিদ্রোহী-জান্তা বাহিনীর ব্যাপক সংঘর্ষ, ৭০ সেনা নিহত

নিউজ ডেস্ক: মিয়ানমারের সাগাইং রাজ্যে জান্তা বাহিনী ও তাদের মিত্রদের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর। এতে অন্তত ৭০ সেনা নিহতের দাবি করেছে পিপলস ডিফেন্স ফোর্সেস (পিডিএফ)। অন্যদিকে ৬০ জনের বেশি বিদ্রোহী আহতের দাবি সামরিক সরকারের মিত্র এসএনএ-র। এদিকে, সব রাজনৈতিক বন্দিকে মুক্তি দিতে জান্তা সরকারকে আরও চাপ প্রয়োগের আহ্বান জানিয়েছে দেশটির জাতীয় ঐক্য সরকার। খবর ইরাবতির।

মিয়ানমারের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) টোকিও পৌঁছান জাপানি চলচ্চিত্র পরিচালক তরু কুবতা। এ সময় বিমানবন্দরে আবেগঘন পরিস্থিতি তৈরি হয়। তার মুক্তি পেতে জাপান সরকারের চেষ্টার প্রশংসা করেন সাড়ে তিন মাস জান্তা কারাগারে থাকা তরু।

এদিন দেশটির কারাগারে থাকা সব রাজনৈতিক বন্দির মুক্তির দাবি জানিয়েছে মিয়ানমারের জাতীয় ঐক্য সরকার। জান্তা সরকারের ওপর চাপ প্রয়োগ বাড়ানোর আহ্বানও জানান তারা। এর আগে চলতি সপ্তাহেই চার বিদেশিসহ ছয় হাজার বন্দিকে মুক্তি দেয় জান্তা সরকার।

এদিকে, মিয়ানমারের বিভিন্ন রাজ্যে জান্তা বাহিনীর সঙ্গে বিদ্রোহী যোদ্ধাদের সংঘাত অব্যাহত আছে। সংবাদমাধ্যম ইরাবতি জানায়, উত্তরাঞ্চলীয় সাগাইং রাজ্যে সামরিক সেনা ও তাদের মিত্র হিসেবে পরিচিত শান্নি আর্মিদের সঙ্গে ব্যাপক সংঘাত হয়েছে বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর। এতে বহু সেনা ও তাদের মিত্ররা হতাহত হয়েছে বলে দাবি পিডিএফের।

আরেক প্রতিবেদনে সংবাদমাধ্যমটির দাবি, গত তিন দিনে সাগাইং বাদে অন্য রাজ্যগুলোতে বিদ্রোহীদের হামলায় অন্তত ৩৩ সেনা নিহত হয়েছে। অপরদিকে দুজন বিদ্রোহীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়।

২০২১ সালে মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখলের পর থেকেই জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে সোচ্চার বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলো। তাদের দমনে বিভিন্ন রাজ্যে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে জান্তা বাহিনীও।

Back to top button