অর্থ-বাণিজ্য

রিজার্ভ লোপাট : ভারতীয় রাকেশের কাজের পরিধি কমছে

রিজার্ভ চুরির পর নিয়োগ দেয়া প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ ভারতীয় নাগরিক রাকেশ আস্তানার  কাজের পরিধি কমানো হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বুধবার (১৬ মার্চ) সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় কমিটি সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংক স্বাভাবিক অবস্থায় নেই, ব্যাপক পুনর্গঠন প্রয়োজন। নতুন গভর্নর যোগ দেয়ার পর দুই গভর্নর নিয়োগে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’ রিজার্ভ অ্যাকাউন্টের অর্থ চুরির বিষয়েও পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘গভর্নর দায়িত্ব নেয়ার পরই কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সবকিছু দেখাশোনা করবেন। নতুন দুই ডেপুটি গভর্নর নিয়োগে সার্চ কমিটি গঠন করে বিষয়টি তিনিই দেখভাল করবেন। এজন্য এটি একটু সময়সাপেক্ষ ব্যাপার।’

ব্যাংকিং ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব বদল নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনার সঙ্গে সচিব জড়িত না। কিন্তু তিনি ব্যাংকিং ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব ছিলেন, বিষয়টা তার জানা উচিত ছিল। জানেন না বলে উচ্চ পদে আসীন কোনো কর্মকর্তা নিজের দায় এড়াতে পারেন না। এ কারণে তাকে সরানো হয়েছে।’

রিজার্ভ অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ লোপাটে ব্যাপক বিতর্কের মুখে মঙ্গলবার পদত্যাগ করেন ড. আতিউর রহমান। আতিউরের পদত্যাগের কিছুক্ষণের মধ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর পদে নিয়োগ দেয়া হয় ফজলে কবিরকে। বর্তমানে তিনি সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন। ফজলে কবির বাংলাদেশ ব্যাংকের ১১তম গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব নেবেন।

এদিকে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অর্থ লোপাটের ঘটনায় ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব এম আসলাম আলমকে সরিয়ে দেয়ার পর সেই দায়িত্ব দেয়া হয়েছে প্রাইভেটাইজেশন কমিশনের সদস্য মো. ইউনুসুর রহমানকে।

বুধবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। একই প্রজ্ঞাপনে ব্যাংক ও আর্থিক বিভাগের সচিব ড. এম আসলাম আলমকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button